Diaspora Paragraph with Bangla Meaning

বন্ধুরা, আজ তোমাদের জন্য বর্তমান সময়ের একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্যারাগ্রাফ নিয়ে হাজির হলাম। তোমরা যারা এইচএসসি তে পড়ছ, তারা সবাই হয়তো শুনেছো Diaspora শব্দটি। যার আভিধানিক অর্থ (Diaspora meaning in Bangla) হলো অভিবাসী। অভিবাসী হচ্ছে…

বন্ধুরা, আজ তোমাদের জন্য বর্তমান সময়ের একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্যারাগ্রাফ নিয়ে হাজির হলাম। তোমরা যারা এইচএসসি তে পড়ছ, তারা সবাই হয়তো শুনেছো Diaspora শব্দটি। যার আভিধানিক অর্থ (Diaspora meaning in Bangla) হলো অভিবাসী। অভিবাসী হচ্ছে তারা যারা নিজের ইচ্ছায় অথবা জোরপূর্বক নিজের জন্মভূমি ত্যাগ করে অন্য দেশে বা এলাকায় বসবাস করে। সাম্প্রতিক কালে রোহিঙ্গাদেরকে এরকম Diaspora বলা যায়।
তো আমরা আজ শিখব Paragraph on Diaspora । নিচের ছবিতে প্যারাগ্রাফটি ইংরেজিতে দেওয়া আছে যার বাংলা অর্থ নিচে দেওয়া হল

এই টিউটোরিয়ালটি পড়া শেষে তুমি জানতে পারবে,

  • Diaspora কি?
  • বিশ্বে কারা প্রথম Diaspora?
  • Diaspora হওয়ার কারণ?
  • কিভাবে মানুষ Diaspora হচ্ছে?
Diaspora Paragraph with Bangla Meaning

Download Paragraph on Diaspora PDF

Diaspora Paragraph with Bangla Meaning

অভিবাসী বলতে বোঝায় সেই দল/জাতিকে যারা তাদের নিজ মাতৃভূমি ত্যাগ করে অন্য দেশে স্থায়ীভাবে বসবাস করে। হয়তো তাদেরকে জোর করা হয়েছে দেশ ত্যাগ করতে বা তারা নিজ ইচ্ছায় ত্যাগ করেছে। সর্বপ্রথম ইহুদিদের (Jews) পূর্বপুরুষ আব্রাহামকে বাধ্য করা হয়েছিল ইরাক ত্যাগ করতে। তাই তিনি আশ্রয় নিয়েছিলেন মিশরে (Egypt)। তারপর তার উত্তরসুরী ইহুদিদেরকে ও বাধ্য করা হয় মিশর ত্যাগ করতে এবং তারা ফিলিস্তিনে আশ্রয় নিল। মানবসভ্যতার ইতিহাসে ইহুদিরা সর্বপ্রথম অভিভাসী। পরবর্তীতে ইসলামী যুগে, তাদের অনেককেই ফিলিস্তিন ত্যাগ করতে জোর করা হয়। তখন ইহুদিরা ইউরোপ এবং আমেরিকায় অভিবাসী হয়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর, পশ্চিমা শক্তির সাহায্যে ইহুদিরা আবার ফিলিস্তিনে ফিরে আসতে থাকে এবং তারা ইসরাযেল নামে নিজস্ব একটি দেশ ও গঠন করে। এখন ফিলিস্তিনদের তাদের মাতৃভূমি ত্যাগ করতে বাধ্য করা হচ্ছে। ফলে তারা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অভিবাসী হচ্ছে। আমরা সবাই সর্বশেষ ঘটনাটি জানি, মিয়ানমার সরকার মুসলিম সংখালঘু ’রোহিঙ্গা’ দের তাদের মাতৃভূমি ত্যাগ করে পালিয়ে যেতে বাধ্য করেছে। প্রকৃতপক্ষে এই প্রক্রিয়াটি ১৯৭০ সালের পর থেকে চালু হয়েছিল। আনুমানিক ৩.৫ মিলিয়ন রোহিঙ্গা আগস্ট ২০১৭ এর পুর্বেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। বেশির ভাগ রোহিঙ্গা প্রায় ৯.৫০,০০০ বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছিল। অনেকে ভারত, ইন্দোনেশিয়া, মালেয়শিয়া ও থাইল্যান্ডে পালিয়ে গেল। এছাড়াও বর্তমানে বিশ্বায়নের কারণে মানুষ নিজের ইচ্ছায় অভিবাসী হচ্ছে।

One Comment

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।